১৩০ কোটি অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলবে ফেসবুক!

ব্যবহারকারীগণ ফেসবুকে বন্ধু সংযোজন, বার্তা প্রেরণ এবং তাদের ব্যক্তিগত তথ্যাবলী হালনাগাদ ও আদান প্রদান করতে পারেন, সেই সাথে একজন ব্যবহারকারী শহর, কর্মস্থল, বিদ্যালয় এবং অঞ্চল-ভিক্তিক নেটওয়ার্কেও যুক্ত হতে পারেন। ফেসবুক এবার নামছে নতুন অভিযানে। যে সমস্ত প্রোফাইলে হিংসাত্মক, বর্ণবিদ্বেষমূলক, সন্ত্রাসবাদ সমর্থনকারী, যৌন উদ্রেককারী এবং মিথ্যা খবর কিংবা ছবি, ভিডিও থাকবে সেগুলির মুছে দেয়া হবে বলে জানিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

সম্প্রতি ফেসবুকের বিরুদ্ধে তথ্য ফাঁসের অভিযোগ উঠেছে। তাছাড়া ফেক প্রোফাইলের অভিযোগ তো আছেই। এসব অভিযোগের কারণে এবার তাই ১৩০ কোটি অ্যাকাউন্ট মুছে দেবে ফেসবুক।

তবে কাজটা যে একদম সহজ তা কিন্তু নয়। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সে বিষয়টিও স্বীকার করেছে। তারা বলছে, এই বিষয়টিতে কাজ করতে কর্মীদের নজরদারিতে নিয়োগ করা হবে। সাম্প্রদায়িক হিংসা ছড়ানোর ক্ষেত্রগুলোতেও বেশি বেশি নজরদারি চালানো হবে।

ঠিক কতগুলি পোস্ট বা প্রোফাইল মুছে দেওয়া হবে, তার পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করেছে ফেসবুক। ২০১৭ সালে হিংসাত্মক বিষয় পোস্ট করার ক্ষেত্রে চিহ্নিত করা হয়েছে ১২ লক্ষ প্রোফাইল। ২০১৮ সালে এই সংখ্যাটা ৩.‌৪ লক্ষ। ধর্ম বা জাতি তুলে ঘৃণাসূচক মন্তব্য, ছবি বা ভিডিও পোস্ট করার জন্য ২০১৭ সালে চিহ্নিত করা হয়েছে ১৬ লক্ষ প্রোফাইল।

২০১৮ সালে এই সংখ্যাটা ৩৮ লক্ষ। ২০১৭ সালে পর্নোগ্রাফি বিষয়ক পোস্ট করার ক্ষেত্রে চিহ্নিত করা হয়েছে ২১ লক্ষ প্রোফাইল। ২০১৮ সালে এই সংখ্যাটা আরো ২১ লক্ষ। ২০১৭ সালে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপকে সমর্থন করে পোস্ট করার ক্ষেত্রে চিহ্নিত করা হয়েছে ১১ লক্ষ প্রোফাইল।

২০১৮ সালে এই সংখ্যাটা ১৯ লক্ষ। ২০১৭ সালে ভুয়া পরিচয় দিয়ে হিংসাত্মক বিষয় পোস্ট করার ক্ষেত্রে চিহ্নিত করা হয়েছে ৬ কোটি ৯৪ লক্ষ প্রোফাইল। ২০১৮ সালে এই সংখ্যাটা ৫ কোটি ৮৩ লক্ষ। তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।