হজের খুতবা বাংলায় প্রচারিত হবে!

বিগত বছরগুলোতে আরবি ভাষাতেই হজের খুৎবা দেয়া হয়েছে। কিন্তু এ বছর কয়েকটি ভাষায় এ খুৎবা অনুবাদ প্রচারিত হবে। গত বছর ৫টি ভাষায় এই খুতবা অনুবাদ করা প্রচারিত হয়েছিল। সৌদি গণমাধ্যম সৌদি গেজেট জানায়, এ বছর আরও ৫টি ভাষায় প্রচারিত হবে। প্রচারিত মোট ১০টি ভাষার মধ্যে এবার স্থান পেয়েছে বাংলা।

গ্র্যান্ড মসজিদ ও মসজিদে নববীর চেয়ারম্যান অব জেনারেল অ্যাফেয়ার্সের চেয়ারম্যান ড. আব্দুল রহমান বিন আব্দুলাজিজ আল সুদাইস এই তথ্য জানিয়েছেন। আরবির বাইরে যে ১০টি ভাষায় হজ খুতবা দেয়া হবে সেগুলো হলো; বাংলা, ইংরেজি, মালয়, উর্দু, ফার্সি, ফেঞ্চ, ম্যান্দারিন, তুর্কি, রুশ ও হাবশি।

আরাফাতের ময়দানে হলো সেই স্থান যেখানে হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার বিদায় ভাষণ দিয়েছিলেন।

করোনা ভাইরাসের কারণে এবার সৌদি আরবে অবস্থানরত মুসলিমদের থেকে মাত্র কয়েক হাজার মানুষ হজের অনুমতি পেয়েছে। এর মধ্যে ৭০ শতাংশ বিদেশি এবং ৩০ শতাংশ সৌদি আরবের নাগরিক।

এবার ২২ জুলাই জিলহজ মাসের প্রথমদিন এ বছরের হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। এতে সৌদি আরবে বসবাসরত বিভিন্ন দেশের ১০ হাজার মুসল্লি অংশ নিতে পারবেন। মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণরোধে সৌদি আরবের সিদ্ধান্তে এ বছর সীমিত আকারে হজ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ইতিমধ্যে সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে যেসকল স্থানে হাজিরা অবস্থান নেন, সে সব জায়গা প্রস্তুত রাখা হয়েছে। সৌদি সরকার অনলাইনে নিবন্ধনের মাধ্যমে এ বছরে হজের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন।